নিউজ

অমিত শাহের ছেলে জয় শাহের কি যোগ্যতা আছে ক্রিকেট প্রশাসক হবার? কোনোদিন ব্যাট হাতে ধরেছে ও?- প্রশ্ন তুললেন মমতা!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-বাংলা সফরে আসার পর থেকেই অমিত শাহ কে একটার পর একটা কটাক্ষে জর্জরিত করছে,তৃণমূল সরকার।এবার শুধু অমিত শাহ কেই নয়,জয় শাহের ক্রিকেটের প্রশাসক হওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলল তৃণমূল।

গত বুধবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাংলা সফরকে কেন্দ্র করে বিরোধীপক্ষের সঙ্গে সরকার পক্ষের অশান্তি লেগেই আছে।এবার অমিত শাহের প্রতি তৃণমূলের প্রশ্ন,”আচ্ছা বলুন তো, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রশাসক হবার কি যোগ্যতা রয়েছে আপনার শ্রীমানের?”

শুক্রবার সফরের তৃতীয় দিনে সন্ধ্যায় সাংবাদিক বৈঠক শেষে ফিরে যাওয়ার তোড়জোড় করতে করতেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানান,মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের ভাইপো কে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসানোর জন্য দলের অন্যান্য নেতা দের সরিয়ে দিচ্ছেন। শুধুমাত্র তাই নয় রাজ্যের তৃণমূলের দিন শেষ বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তৃণমূল সরকারের তরফ থেকে এ প্রসঙ্গে পাল্টা জবাব আসে বক্তব্য,”জয় শাহের কী এমন যোগ্যতা রয়েছে, যে উনি হঠাৎ ভারতে ক্রিকেট প্রশাসকের পদ পেলেন? কিভাবে উনি বিসিসিআই সচিব হলেন?” প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ২০১৪ সাল থেকে গুজরাটের ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ছিলেন অমিতশাহ।

অমিত শাহের সাথে গুজরাট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের যৌথ সচিব ছিলেন তাঁর পুত্র জয়। গতবছর সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট পদে বসলে সেই সময় সচিব পদে যোগদান করেন জয় শাহ। তখন থেকেই রাজনীতির প্রভাব ক্রিকেট বোর্ডের ওপর এসে পড়ছে।পরিবার নিয়ে অমিত শাহের কটাক্ষের জবাব এভাবেই দিয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব।

পাল্টা মন্তব্য করা হয়েছে বিজেপির তরফ থেকেও।সায়ন্তন বসু এ প্রসঙ্গে বলেন,”বাংলায় কে নোংরা করে,সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করে টিকে রয়েছে তা বাংলার মানুষ জানে। বিরোধী রাজনৈতিক দলের কর্মীদের খুন, মারধোর করা থেকে টাকা লুট এসব তো রোজই দেখতে পাচ্ছেন।” উল্লেখ্য বাংলা সফরে এসে অমিত শাহ বলেছিলেন যে বাংলায় বিজেপি ২০০ টি আসনের ক্ষমতায় আসবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button