নিউজবিনোদন

ব্লাউজ ছাড়া শাড়ীতে ভাইরাল ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের ছবি!

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন:-এবারের মরণব্যাধি করোনার জন্য বাঙালির শ্রেষ্ঠ পুজোর দুর্গাপূজার হবে অন্যরকম ভাবে । বলা বাহুল্য বেশিরভাগই হবে ভার্চুয়াল মাধ্যমে । আগের বছরের মতন আর পুজোর প্রস্তুতি তুঙ্গে তেমনভাবে চোখে পড়ছে না । তেমন ভাবে পাড়াতে পাড়াতে প্যান্ডেল ও নেই ।

Advertisement

তাই নিজের কর্ম ক্ষেত্রে জন্য অনেকেই দেশের বাইরে । তবে সেখান থেকে কলকাতার পুজোর আমেজ পাওয়া সম্ভব নয় । কিন্তু কিছু করার নেই কাজের সুত্রে বাইরে থাকতে হবে। ঠিক সেরকমই বহুদিন ধরে কাজের সূত্রে কলকাতার বাইরে আছে বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ।

Advertisement

এবারে আর কলকাতাতে থাকা হবে না দুর্গা পুজোতে । আপাতত সিঙ্গাপুরের সময় কাটাচ্ছেন বাংলার এই অভিনেত্রী। তবে তার কাছে পুজো মানেই শাড়ি, লাল টিপ, পুজো মানে খোলা চুল গয়না। তাই নিজেকে বাঙালিয়ানায় মেলে ধরতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন তিনি। কারণ নিজে মনেপ্রাণে একজন বাঙালি । সেই ভাবনা চিন্তা কে প্রশ্রয় দিয়ে নিজে সোশ্যাল মিডিয়ার তুলে ধরলেন বিভিন্ন মেজাজের ছবি ।

Advertisement

সিঙ্গাপুরে ছোট করে অষ্টমীর লাঞ্চ বা সপ্তমীর ডিনারের প্ল্যান করেছেন ঋতুপর্ণা। “এ বার কলকাতার ফুচকা, উদ্বোধন সব বন্ধ। কিন্তু আমাদের মনকে তো আর বন্ধ করা যায় না। তাই মায়ের জন্য অপেক্ষা!” বললেন ঋতুপর্ণা। এর পাশাপাশি তিনি বলেন ঋতু বললেন, “নায়িকা ঋতুপর্ণার কোনো বিকল্প হয় না।

Advertisement

নায়িকা ঋতুপর্ণা তো থাকবেই। কিন্তু নায়িকার আত্মপ্রকাশ আরো অভিনয়ের মাধ্যমে কেমন করে হবে? সেটাই চ্যালেঞ্জ। ঐশ্বর্য রায় থেকে বিদ্যা বালন, সবাই এ পথেই তো গিয়েছেন। চ্যালেঞ্জটা বার বার নিতে হবে। কাজই আমার প্রথম প্রেম।” বক্স অফিসের জন্য কাজ তিনি কোনোকালেই করেনি সে রকম হলে ২০০৮ এর ” ইচ্ছে “ছবি নিয়ে তিনি ভাবতেন না ।

Advertisement

তবে সম্প্রতি তিনি একটি ছবি শেয়ার করেছেন তা সোশ্যাল মিডিয়ায় যেখানে পিঠ খোলা অবস্থায় দেখা যাচ্ছে বাংলার এই অভিনেত্রীকে । নিজেকে বোল্ড অবতারে খানিকটা তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন তিনি । ছবিটি মুহূর্তের ভাইরাল হয়েছে । আরো একবার তার লাস্যময়ী সৌন্দর্য দিয়ে উত্তাল করে তোলে নেটদুনিয়া নেটিজেনদের মন । তবে সমপ্রতি পুজোর পর নতুন ছবি মুক্তি পেতে চলেছে যার নাম পার্সেল ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button