নিউজ

2 অক্টোবর থেকে বাংলায় চালু হতে চলেছে দুটি স্পেশাল ট্রেন!

নিজস্ব প্রতিবেদন-সামনে পুজো কেউ কেউ পুজোতে শহরে থাকার থেকে বেশি পছন্দ পছন্দ পছন্দ করে বাইরে ঘুরতে। মোটকথা তাকে এক কথায় বলা যেতে পারে ভ্রমণপিপাসু । কিন্তু এবারে যেহেতু লকডাউন চলছে তাই স্বাভাবিক নয় জীবনযাত্রা। অন্যান্যবারের তুলনায় এবারে পুজোটা হয়তো একটু আলাদা কাটবে এমনটাই আশঙ্কা ছিল ভ্রমণপিপাসুদের মধ্যে । কিন্তু সেই আশাতে ফের আরও একবার প্রাণ দিল একবার প্রাণ দিল ভারতীয় রেল। শুধুমাত্র এই খবর ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য।

যা নিমিষে চাঙ্গা করে দেবে তাদের মন কে । কি এমন খবর। আসুন দেখে নি ।বেশ কিছুদিন আগে পূর্ব রেল ভারতীয় রেল কে চিঠি পাঠায় যে পুজোর সময় অধিক চাহিদা যুক্ত তেরোটি স্পেশাল ট্রেন চালানোর অনুমতির স্পেশাল ট্রেন চালানোর অনুমতির জন্য । এতে রেলের ২৩ কোটি টাকা আয় হবে। এমনটাই জানিয়েছিল পূর্ব রেল পূর্ব রেল । তবে সেই সিদ্ধান্তের কোন উত্তর না এলেও ইতিমধ্যে ইতিমধ্যে ভারতীয় রেল পুজোর আগে শুরু করতে চলেছে দুটি স্পেশাল ট্রেন।

সেই দুটি ট্রেনের রুট কিছুটা হলেও বদলানো হয়েছে।শিয়ালদহ এবং ভুবনেশ্বরের মধ্যে চলাচলকারী স্পেশ্যাল ট্রেনের যাত্রাপথ সম্প্রসারণ করল ভারতীয় রেল। এবার থেকে ট্রেনটি ভুবনেশ্বরের বদলে যাবে পুরী পর্যন্ত। পুরী থেকে ফিরবে শিয়ালদহ।

চলতি মাসের ২ তারিখ থেকে অর্থাৎ সেকেন্ড অক্টোবর থেকে চালু হবে এই পরিষেবা। তবে অন্যান্য স্পেশাল ট্রেনের ক্ষেত্রে যেসব নিয়ম বা সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছিল সেই সমস্ত সতর্কবার্তা এই দুটি ট্রেনের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য । রেলওয়ে তরফ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে যেখানে জানানো হয়েছে যে রাত ৮টার সময় স্পেশ্যাল ট্রেনটি শিয়ালদহ থেকে পুরীর উদ্দেশ্যে রওনা দেবে। পরের দিন সকাল ৪ টে ৩৫ মিনিটে ট্রেনটি পুরীতে পৌঁছবে । এর পাশাপাশি ফেরার সময় অর্থাৎ ডাউন এ রাত ৭টা ২০ মিনিটে পুরী থেকে শিয়ালদহের উদ্দেশে রওনা দেবে। সেগুলি গন্তব্যে পৌঁছবে পরের দিন ভোর ৪টে ১৫ মিনিটে।

রেলওয়ে তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে শিয়ালদা থেকে পুরি যাবার যাবার ট্রেনটি সপ্তাহে দুদিন সোমবার এবং শুক্রবার এবং পুরি থেকে শিয়ালদা আসবে ট্রেনটি সপ্তাহে দুদিন মঙ্গলবার এবং শনিবার। রাজধানীর ভাড়া যেরকম ছিল এ ক্ষেত্রেও সেই একই ভাড়া লাগবে । নেওয়া হবে বিশেষ সতর্কবার্তা ।

ট্রেনে চাপার আগে করা হবে থার্মাল স্ক্রিনিং । যদি কোন যাত্রীর তাপমাত্রা দেহের তাপমাত্রা থেকে বেশি থাকে তাহলে তার কনফার্ম টিকিট থাকলেও তার সফর বাতিল করে দেওয়া হবে। ফিরিয়ে দেওয়া হবে টিকিটের মূল্য। যদিও শিয়ালদা তে বেশকিছু রিজার্ভেশন কাউন্টার ইতিমধ্যে খুলেছে । খুলেছে হাওড়াতে ও । তবে ধর্মতলা ছাড়া বাকি কলকাতার কোথাও আর রিজার্ভেশন কাউন্টার খোলেনি ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button