নিউজস্বাস্থ্য এবং চিকিৎসা

এই দশ খাবার ও এই দশ কু অভ্যাস নষ্ট করে দেয় আপনার কিডনি, ৯৯ শতাংশ মানুষই এই ভুল করে!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-কিডনির সমস্যা এখন প্রায় অনেকেরই জীবনে বড়ো সমস্যা হিসেবে দেখা দিচ্ছে।কিডনি আমাদের শরীরে দূষিত পদার্থ গুলিকে দূর করে পরিচ্ছন্ন রাখতে সাহায্য করে।শারীরিক এবং খাদ্যাভাসের অনিয়ম মূল কারণ কিডনির সমস্যার।দৈনন্দিন জীবনে ব্যস্ত হতে হতে কখন যে আমরা এই অনিয়মগুলো করে ফেলি নিজেরই অজান্তে। আসুন জেনে নেয়া যাক সেসব ছোট কিন্তু বড় কিডনির সমস্যার সৃষ্টি কারি অনিয়ম গুলি, যা রক্ষা করতে পারে আপনি সুস্থ স্বাভাবিক জীবনকে।

প্রথমেই যে খাবার গুলোর কথা বলা হবে সে খাবার গুলো কখনোই গ্রহণ না করার চেষ্টা করবেন। ইনস্ট্যান্ট নুডলস, হ্যা ঠিকই ব্যস্ততার ফাঁকে আমরা এই খাবারটি প্রায়ই খেয়ে থাকি।কিন্তু অনেকেই জানিনা এই নুডলস এর মধ্যে এমন অনেক পদার্থ আছে যা আমাদের কিডনিকে ধীরে ধীরে কার্যক্ষম করে তোলে।

এরপর বলা যাক এনার্জি ড্রিংক বা বাজারজাত ফলের রসের কথা। যতদূর সম্ভব দূরে থাকবেন এই ড্রিঙ্কগুলো থেকে।এছাড়াও ফাস্টফুড এবং চিপস্ তৈরি করতে যেসব উপাদান ব্যবহার করা হয় তাও কিডনির পক্ষে ক্ষতিকারক।তাই যতটা সম্ভব নিজেদের এগুলি থেকেও দূরে রাখবেন।

এরপর আমরা কিছু এমন ধরনের খাবারের কথা জানবো যা সঠিক পরিমাণে গ্রহণ করা হলে শরীরের ক্ষতি করবে না। এই তালিকায় প্রথমেই রয়েছে ভিটামিন সি যুক্ত খাবার। প্রতিদিন ৫০০ মিলিগ্রামের ভিটামিন সি মানবদেহে প্রয়োজন। এছাড়াও উচ্চ প্রোটিনযুক্ত খাবার যেমন মাংস খুব বেশি পরিমাণে খেলে শরীরের জন্য ক্ষতিকারক।-

এর মধ্যে রয়েছে লবণও,খুব বেশি পরিমাণে লবণ খেলে শরীরে উচ্চ রক্ত চাপের সৃষ্টি হয়,যার ফলে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।এমনকি যদি আপনার কিডনিতে পাথরের সমস্যা থেকে থাকে তাহলে আপনি বাদাম খাওয়া বন্ধ করে দিন। কারণ বাদামে থাকা কিছু উপাদান আপনার কিডনির ক্ষতি করতে পারে।

এছাড়াও, এ প্রসঙ্গে আরো কিছু খাবারের কথা বলা যেতে পারে যেমন যদি আপনি টক দই খান, তাহলে দুধ খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।এমনকি খুব বেশি পরিমাণে কফিও খাবেন না।কারণ কফিতে থাকা ক্যাফিন আপনার কিডনির ক্ষতি করে।

সবশেষে বলবো খাদ্যাভাস এর সাথে সাথে জীবনযাত্রাতেও কিছু পরিবর্তন আনুন।দীর্ঘক্ষন প্রস্রাব না করে থাকা,জল পান না করা ,অতিরিক্ত অ্যালকোহল এর ব্যবহার বা একটু ব্যথা হলেই ব্যথানাশক ওষুধ বা পেনকিলার খেয়ে নেওয়া এই বদ অভ্যাস গুলো আপনার কিডনিকে মারা-ত্ম-ক পরিমাণের হানি পৌঁছাতে পারে।

https://youtu.be/oBve4d76Btk

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button