নিউজ

‘বন্দুক হাতে তুলে নেওয়া ছাড়া জম্মু-কাশ্মীরের তরুণদের সামনে আর কোনও রাস্তা নেই’- বিস্ফোরক পিডিপি প্রধান মেহবুবা মুফতি।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-রাজনীতি জীবনে এমন একটি অংশ যা কমবেশি আমরা সকলেই সেটাতে অংশগ্রহণ করে থাকি । যারা বলে যে রাজনীতিতে অংশগ্রহণ নেতারা বিশ্বাসী নয় তারাও কিন্তু প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে রাজনীতির সাথে যুক্ত । ভারতবর্ষের বিভিন্ন বৈচিত্রের দেশ হলেও বিভিন্ন সময় নানান ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়েছে এই দেশ । কখনো বিস্ফোরক মন্তব্য তো কখনো জঙ্গি হামলা ইত্যাদি কে ঘিরে বারবার উঠে এসেছে উত্তে-জ-না-র ঘটনা ।

সেরকম সর্বক্ষণ উত্তেজনা লেগে থাকা একটি জায়গা হল জম্মু-কাশ্মীর । এবং যা এই মুহূর্তে সবচেয়ে বিতর্কিত জায়গা।আমরা দেখেছিলাম যে কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়া তে রীতিমতো ক্ষুব্ধ হয়েছিল কাশ্মীরের জনগণ । তার সাথে সাথে এই ক্ষোভের আঁচ দেখা গিয়েছিল দেশের বিভিন্ন প্রান্ত এ । কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ৩৭০ ধারা ফিরিয়ে দেবার জন্য আন্দোলন করলে তাকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছিল ।

তিনি গৃহবন্দি থেকে মুক্তি পাবার পর বলেছিলেন যে জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা ফেরাতে যতদূর যেতে হয় যাব। তবে সোমবার সেরই তিনি গাইলেন অন্য সুর । বলেন, জম্মু ও কাশ্মীরকে ঘিরে কোনও সংঘাত কাম্য নয়, বরং প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে সেতু বন্ধনের মাধ্যম হিসেবে একে দেখা উচিত।

ফের আর একবার বি-স্ফো-র-ক মন্তব্যের জন্য খবরের শিরোনামে উঠে এলেন মেহবুবা মুফতি। এর আগে ভারতবিরোধী মন্তব্যের জন্য পিডিবি ছেড়েছিল দলের তিন নেতা । এবার সেই পিডিপি এর প্রধান করলেন আর এক বিস্ফোরক মন্তব্য শুনে রীতিমতো হতবাক দেশবাসী।

সোমবার মেহবুবা বলেন, ‘এখানকার যুবকদের হাতে কাজ নেই। বন্দুক হাতে তুলে নেওয়া ছাড়া তাদের সামনে আর কোনও পথ খোলা নেই। উপত্যকায় জঙ্গি দলে নাম লেখানোর প্রবণতা বেড়েছে। বাইরের রাজ্যের মানুষজনকে এখানে কাজ দেওয়া হচ্ছে। কী করবে এখানকার তরুণরা!’পিডিপি প্রধান আরও বলেন, জম্মুর অবস্থা আরও খারাপ। সেখানকার মানুষদের মোহভঙ্গ হচ্ছে।  মোদী  সরকারের উচিত বাজপেয়ীর রাস্তায় হাঁটা। তার এই ধরনের বক্তব্য তাকে ফেরার একবার এনেছে জনসমক্ষে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button