নিউজ

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দিয়ে শুরু ষষ্ঠীর বোধন, বিরল মুহূর্তের সাক্ষী হবে বাংলা!

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন:-সামনে একুশে ভোট কে মাথায় রেখে রাজ্যের ক্ষমতায় আসার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে বিজেপি। সেই মতো চলছে প্রস্তুতি। তবে এবারের যেন এক আলাদা রকম চাল চললো বিজেপি । খুব পরিষ্কার ভাষায় বলতে গেলে বলতে হয় যে বাংলায় ক্ষমতায় আসতে গেলে বাঙালি আবেগকে নিজের রক্ত রপ্ত করতে হবে । মূলত এই ভাবনা চিন্তা কে কাজে লাগিয়েছে বিজেপি ।

Advertisement

একুশে ভোট যত এগিয়ে আসছে তত বিজেপির প্রতি একটি গুজব রটানো হচ্ছে যে বিজেপি আদতে বাঙালি বিরোধী দল । কিন্তু এই মন্তব্য বা এই গুজব অনেকাংশেই সত্যি তা আমরা এর আগে দেখেছি । এবার সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সেই গুজবকে প্রতিহত করার জন্য মাঠে নামছে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী । এমনটাই জানা যাচ্ছে বিজেপির থেকে ।

Advertisement

সবকিছু ঠিক থাকলে ষষ্ঠীর দিন অর্থাৎ যেদিন মায়ের বোধন শুরু হয় সেদিন ভার্চুয়ালে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ শোনা যাবে দেশজুড়ে । মূলত বাঙালির সেন্টিমেন্টাল বা আবেগকে কাজে লাগাতে চাইছে বিজেপি । এমনটাই মনে করছেন অনেকে । তবে এতে খুব একটা ফল যে হবে না সে ব্যাপারে নিশ্চিত বিরোধী দলের একাংশ । কারণ রাজ্যের মানুষ ইতিমধ্যে জেনেছে বিজেপি বাঙালি বিরোধী।

Advertisement

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ক্লাব গুলিকে ৫০ হাজার টাকা করে দিয়েছে ইতিমধ্যে এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । তাঁর সাথে সাথে নির্দেশ দিয়েছেন যাতে মন্ডপের চারিদিক খোলা থাকে এবং প্রতিটি মণ্ডপে স্যানিটাইজার এর ব্যবস্থা থাকে । সমস্ত রকম সতর্কবার্তা নিয়ে যেন করা হয় এবারের দুর্গা পুজো । এর পাশাপাশি দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন পুজোর আগে কলকাতায়। পা রাখতে চলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ । তবে কোন পুজো প্যান্ডেলে উদ্বোধন করতে নয় বরং সাংগঠনিক বৈঠক জন্য আসছেন তিনি ।

Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button