নিউজভিডিও

যে পদ্ধতিতে পেঁপে খেলে একদম চিরতরে দূর হয় কোষ্টকাঠিন্য, পেটের গ্যাস ও বদহজমের মতো সমস্যা!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-আমাদের চোখের সামনে এমন বেশ কিছু শাক সবজি থেকে থাকে যা মুহূর্তের মধ্যে নিরাময় করে বিভিন্ন রোগব্যাধি । জটিল থেকে জটিলতর ব্যাধিগুলি ওষুধের দ্বারা নয় বরং শাকসবজি দ্বারা নিরাময় হয়। একথা আমরা হয়তো অনেকেই জানি না ।

আজকালকার প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা শাকসবজি থেকে অনেকটাই দূরে। বাজারে ফাস্টফুড তৈলাক্ত জাতীয় খাবার বেশি খেতে পছন্দ করে যার ফলে প্রতিদিনই বেড়ে চলেছে নানান রকম রোগ ব্যাধি ।এর মধ্যে অন্যতম একটি হলো কোষ্ঠকাঠিন্য ।যা মানুষকে অত্যন্ত অসুবিধার মধ্যে যেকোনো পরিস্থিতিতে ফেললে।

এই মুহূর্তে আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চলেছি পেপের উপকারিতা যা কিনা কোষ্ঠকাঠিন্য মুক্তিতে সাহায্য করে ।এর পাশাপাশি করে আরো অনেক রকম রোগ নিরাময়ের কাজ । ১০০ গ্রাম পেঁপেতে শর্করা থাকে ৭.২ গ্রাম, খাদ্যশক্তি ৩২ কিলোক্যালরি, ভিটামিন সি ৫৭ মিলিগ্রাম, সোডিয়াম ৬.০ মিলিগ্রাম, পটাশিয়াম ৬৯ মিলিগ্রাম, খনিজ ০.৫ মিলিগ্রাম এবং ফ্যাট মাত্র ০.১ গ্রাম।

এই উপাদানগুলো শুধু শরীরের চাহিদাই মেটায় না, রোগ প্রতিরোধেও অংশ নেয়।’ প্রচুর পরিমাণ আঁশ, ভিটামিন সি, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আছে পেঁপেতে। এই উপাদানগুলো র-ক্তনালিতে ক্ষ-তিকর কোলেস্টেরল জমতে বাধা দেয়। তাই হৃদস্বাস্থ্য সুরক্ষায় এবং উচ্চরক্তচাপ এড়াতে পেঁপে খেতে পারেন নিয়ম করে ।

বেশ কিছু গবেষণা অনুসারে পেঁপের অন্দরে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ভিটামিন এবং মিনারেল, যা নানাভাবে শরীরের উপকারে লেগে থাকে। তাই তো সেই প্রাচীনকাল থেকে নানা রোগের চিকিৎসায় কাজে লাগানো হয়ে থাকে এই ফলটিকে। সুস্থ থাকতে বাস্তবিকভাবে পেঁপের রস খাওয়ার কোনো বিকল্প নেই ।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে পেঁপের অবদান অনস্বিকার্য । পেঁপের রসে উপস্থিত ফাইবার, শরীরে প্রবেশ করার পর বর্জ্যের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো রোগের কষ্ট কমতে শুরু করে। ফলে সুস্থজীবনের স্বপ্ন পূরণ হতে একেবারেই সময় লাগে না।

প্রতিদিন সকাল বেলায় উঠে এক গ্লাস করে কাঁচা পেঁপের রস যদি আপনি সেবন করতে পারেন তাহলে খুব সহজে আপনি কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি পাবেন। এর পাশাপাশি মুক্তি পাবেন হার্ট অ্যাটাক জনিত সমস্যা থেকে । কারণ পেঁপের মধ্যে যে সমস্ত খনিজ উপাদান গুলি থাকে তা হার্টজনিত রোগের থেকে মুক্তি দেয় ।

https://youtu.be/IAEAjxVOGvU

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button