নিউজ

কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের চার জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভবনা, এই জেলাগুলিতে সতর্কতা জারি করল মৌসম বিভাগ!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-ইতিমধ্যে বাঙালি শ্রেষ্ঠ পুজোর দুর্গাপূজার অবসান ঘটেছে। কিন্তু সামনে রয়েছে কালীপুজো যাকে ঘিরে রয়েছে কিছুটা আনন্দের আমেজ । কিন্তু ঠিক দূর্গা পূজার আগে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর যেমন দুঃসংবাদ শুনিয়েছিল ঠিক তেমনি আরো একবার দুঃসংবাদ শোনালো আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর ।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছিল যে কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষিপ্ত পরিমাণে বৃষ্টি হতে পারে। সে মতো কয়েকটি জেলায় বৃষ্টির আভাস দেখা গিয়েছিল। তবে আরো একবার বৃষ্টির পূর্বাভাস দিলো আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর ।যদিও ইতিমধ্যে মৌসুমী বায়ু দেশ থেকে বিদায় নিয়েছে তবুও বৃষ্টি রেশ এখনো পর্যন্ত কাটেনি । কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলাতে মাঝে মাঝে দেখা যায় মেঘলা আকাশ ।

অন্ধকার আসে ধেয়ে। কিন্তু তেমন পরিমাণে বৃষ্টি না হলে আগামী দিনে অর্থাৎ রবিবার দিন এবং সোমবার দিন বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর । এর পাশাপাশি ধীরে ধীরে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে অর্থাৎ শীতের আগমন ঘটেছে কিন্তু এই অবস্থায় বৃষ্টি রীতিমতো ভাবিয়ে তুলছে রাজ্যবাসীকে ।

মধ্যপ্রদেশে ইতিমধ্যেই ঠাণ্ডার প্রভাব শুরু হয়ে গেছে৷ শ্রীনগরে তাপমাত্রা ০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছে পৌঁছে যাওয়ায় সিধে উত্তর থেকে ঠাণ্ডা হাওয়া দেশের মধ্যে ঢুকে পড়ছে৷ দেওয়ালির পর থেকে দ্রুত ঠাণ্ডা লাগা শুরু হবে৷ এদিকে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গেও বৃষ্টির ছায়া রয়েছে৷ বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে৷ রবিবার একটু বেলার দিক থেকে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে বজ্র বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে৷

অসম আর মেঘালয় , নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মিজোরাম ও ত্রিপুরায় প্রবল বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করেছে দিল্লির মৌসম বিভাগ৷ প্রবল বৃষ্টিক সঙ্গে সঙ্গে প্রবল হাওয়া ও আঁধিরও সম্ভবনা রয়েছে৷ বঙ্গোপসাগরের পূর্ব ও উত্তরপূর্ব খাঁড়িতে ৪০-৫০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিতে হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে৷  ফলে সেখানকার মৎস্যজীবীদের সমুদ্র উপকূলে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button