টেক নিউজনিউজ

দারুন কম দামে বাজারে আসছে সবচেয়ে হালকা ইলেকট্রিক বাইক, একবার চার্জ দিলে চলবে 60 কিমি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-দেশজুড়ে যেমন বেড়ে চলেছে বেকারত্বের সংখ্যা ঠিক তার পাশেই পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে পেট্রোল ডিজেল অন্যান্য জ্বালানির দাম । এই দুটি কোথাও যেন একে অপরের পরিপূরক। অর্থাৎ পর্যাপ্ত পরিমাণে টাকা পয়সা না থাকলে পেট্রোলের দাম রীতিমত প্রভাব ফেলবে আমাদের এই জনজীবনে । কিন্তু নতুন প্রজন্ম বাইক নিয়ে ঘোরাফেরা করার এক ব্যাপক প্রচলন আছে দেশজুড়ে ।

কিন্তু পেট্রোলের দাম অধিক হওয়ায় অনেকে বাইক কেনার চিন্তা ভাবনা থেকে দূরে থেকে দূরে ভাবনা থেকে দূরে থেকে দূরে চিন্তা ভাবনা থেকে দূরে থেকে দূরে সরে এসেছেন অনেকে । আবার অনেকে তাদের পুরনো বাইক গুলি গ্যারেজে রেখে দিয়েছে ব্যবহার করছেন বাস ট্রাম , ট্রেন ইত্যাদি । তবে ইতিমধ্যে বাজারে বিভিন্ন ইলেকট্রিক বাইক এসেছে । সম্প্রতি জার্মান একটি কম্পানি Novus নামে একটি ইলেকট্রিক বাইক আনতে চলেছে যা বাকি সব বাজারে ইলেকট্রিক বাইক কে টেক্কা দেবে।

বাইকটি যাবতীয় অংশ এবং যন্ত্রপাতি উচ্চমানের কার্বন ফাইবার দিয়ে তৈরি করা হয়েছে এর ফলে বাইকটি ওজন খুব অল্প । মাত্র ৭৫ কিলো ওজনের এই বাইকটি হ রীতিমতো ১২৫ কিলো ওজন বহন করতে সক্ষম এমনটাই জানা যাচ্ছে ওই বাইক নির্মাণ কোম্পানি তরফ থেকে।

এর পাশাপাশি বাইকের চাকা , রিম , ও অন্যান্য অংশ কার্বনের হওয়ায় তার ওজন মাত্র ৭ কিলোগ্রাম । তবে এত হালকা বাইক রাস্তায় জাঁকিয়ে চলবে কিনা তা নিয়ে আছে ঢের প্রশ্ন । আপাতত আপনি যদি এই মুহূর্তে বাইকটি অর্ডার করেন তাহলে সেই বাইকটি আপনার হাতে আসবে ২০২২ এ অর্থাৎ প্রায় এক বছর পর ।

এই সি’ঙ্গেল সিটার বাইকে ১৮ কিলোওয়াট এর একটি মোটর আছে যা ২৪ হর্সপাওয়ার উৎপন্ন করতে পারে। এই বাইকটির সর্বোচ্চ গতি ১২০ কিমি প্রতি ঘন্টা এবং ০-৫০km/h যেতে সময় নেয় মাত্র ৩ সেকেন্ড। একবার পুরো ব্যাটারি চার্জ হলে, ১০০ কিমি অব্দি যাওয়া যেতে পারে। এই বাইকে অত্যাধুনিক কি লেস প্রযুক্তি আছে অর্থাৎ আপনার স্মা’র্টফোনের এনএফএসসি দ্বারা বাইক আনলক করতে পারবেন।

এছাড়াও মাত্র ১ ঘণ্টাই বাইকের ৮০ শতাংশ ব্যাটারি চার্জ করা যেতে পারে। এবং এতে বিদ্যুতের খরচাও খুব অল্প পরিমাণ। হয় কাজেই পেট্রোল এর চিন্তা থেকে মুক্তি পেয়ে আপাতত এই ইলেকট্রিক বাইক গুলিকে কাছে টেনে নিয়েছেন বাইক প্রেমীরা .।

বাকি সমস্ত দিক ঠিক থাকলেও বেশি চিন্তার বিষয় হচ্ছে বাইকটির দাম । স্পেসিফিকেশন এবং অন্যান্য ফিচার সহ এই বাইকটি দাম নিয়ে রীতিমতো চিন্তায় আছে অনেক বাইক প্রেমীরা । বাইকের দাম টাক্স ছাড়াই ৩৯৯০০ ইউরো। এরপর অন রোড বাইকটির দাম প্রায় ৫০০০০ ইউরো হয়ে যাবে যা একটি Tesla model 3 এর দামের সমান।

এছাড়াও, আপনি এখন বাইকটি বুক করলে আপনাকে এখন দিতে হবে ১০০০ ইউরো। এই বাইক আপনি এখন অর্ডার করলে পাবেন ২০২২ সালে। তাহলে পেট্রোলের মূল্যবৃদ্ধির কথা মাথা থেকে বের করে দিন এবং একই সুবিধা যুক্ত ইলেকট্রিক বাইক বাড়িতে আনার ব্যবস্থা করুন ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button