নিউজভিডিও

অনেকটাই বড় হয়েছে মেয়ে!বিছানায় বসে মেয়ের চুল বেঁধে দিচ্ছে অভিনেতা জিৎ, ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন :-২০০৯ সালের পর থেকে বাংলা ইন্ডাস্ট্রি কে আরেকবার তুলে ধরেছিলেন যে দুজন বাংলার অভিনেতা তার নাম দেব এবং জিৎ। এমনটাই অনেকে মনে করেন । তবে কালীঘাট থেকে উঠে আসা মুম্বাইয়ে রীতিমতো রাজ করা বাংলার অভিনেতা জিত বাড়িতে ক্যামন? এই সম্পর্কে জানার জন্য অনেকে অনেক রকম ভাবে কৌতুহল প্রকাশ করেছেন । তবে সেই সব এর উত্তর দিতে চলেছে শুধুমাত্র একটি ভিডিও কি সেই ভিডিও।

” ডটারস ডে” উপলক্ষে জিৎ তার নিজের মেয়ে সাথে একটি ভিডিও পোস্ট করেন টুইটারে। আর সেই ভিডিও লক্ষ লক্ষ দর্শকের প্রশ্নের উত্তর দেয় যে আসলে বাড়িতে জিৎ কেমন বা বাবা হিসেবে জিৎ কেমন । কাজের পাশাপাশি তিনি সমানভাবে গুরুত্ব দেন বাড়িকেও ।

এর পাশাপাশি পুরনো রীতি-নীতিকে তিনি যথেষ্ট মেনে চলেন । কলকাতার কালীঘাট থেকে উঠে আসা এই বাঙালি অভিনেতা” সাথী ” সিনেমায় রীতিমত তোলপাড় ফেলে দিয়েছিল দর্শকদের মধ্যে। তারপর থেকে আর তাকে ঘুরে তাকাতে হয়নি । একের পর এক হিট ছবির মাধ্যমে রীতিমতো জয় করে ফেলেছেন লক্ষ্য দর্শকের মন ।

তাঁর মেয়ের নাম নবন্যা৷ বয়স ৭৷ বাবা-মেয়ের সম্পর্ক খুবই মজাদার৷ কাজের সূত্রে বাবা দীর্ঘক্ষণ বাইরে থাকেন৷ তাই ছোট্ট মেয়ে জিৎকে খুবই মিস করেন৷ কিন্তু যখন বাবা বাড়িতে থাকেন তখন অনেকটাই সময় কাটান মেয়ের সঙ্গে৷ তাই বাবার সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হওয়ার প্রশ্নই থাকে না৷

মেয়ের সঙ্গে কাটানো সময়ের ভিডিও পোস্ট করেছেন জিৎ৷ গোটা ভিডিওটাই যেন আদরে মাখা৷ মেয়ের সঙ্গে খাটে শুয়ে জিৎ করছেন খুনসুটি৷ কখনও নবন্যাকে হাসাচ্ছেন বাবা জিৎ, আবার কখনও যত্নে মেয়ের সঙ্গে চুল বেঁধে দিচ্ছন অভিনেতা৷

মেয়ের সঙ্গে কাটানো সময়ের ভিডিও বাড়িতে ক্যামেরাবন্দি করেছেন জিতের স্ত্রী মোহনা৷ প্রেম করে নয় বরং বাবা-মায়ের দেখা পাত্রীকে বিয়ে করেছিলেন জিৎ। এই থেকে বোঝা যায় তার পুরনো রীতি নীতির প্রতি সম্মান এর কথা । তাদের বাবা মেয়ের এই ভিডিও সামনে আশাতে শুরু হয়েছে উত্তেজনা । দর্শক ও অনুগামীরা আবার কমেন্ট সেকশনে বলেছেন এভাবেই অটুট থাকুক বাবা মেয়ের সম্পর্ক ।

 

View this post on Instagram

 

Daughters are the Best… everyday and forever their day #happydaughtersday

A post shared by Jeet (@jeet30) on

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button