নিউজ

সকাল সকাল স্বল্প পোশাকে জিমে সেক্সারসাইজ গ্লো করে উষ্ণতা ছড়ালেন শ্রীলেখা মিত্র, মুহূর্তে ভাইরাল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদন:-বাংলার অভিনয় জগতে এমন অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রী আছেন যারা বয়সের সাথে একদমই মানানসই নয় । কারণ তাদের শরীরের বয়স কোনরূপ ছাপ ফেলতে পারেনি। তার পাশাপাশি সেইসব অভিনেতা-অভিনেত্রীরা এই মুহূর্তে টেক্কা দিতে পারে কমবয়সী অভিনেতা-অভিনেত্রীদের।

সেরকমই একটি উজ্জ্বল যৌ-ব-নের অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র বাংলার অভিনয় জগতের পাশাপাশি তার ঠোঁট কাটা স্বভাবের জন্য তিনি অনেকের কাছেই প্রিয় আবার অনেকের কাছে অপ্রিয় বটে। তবে সেই শ্রীলেখা মিত্র সম্প্রতি এমন এক ধরনের তথ্য সবার সামনে তুলে ধরেছে যা রীতিমতো অবাক করেছে তার অনুগামীদের।

শ্রীলেখা মিত্র বয়স অনেক হলো। কিন্তু দেখে বোঝার উপায় নেই কারণ এখনও শরীরে যৌ-ব-ন এর ছাপ রয়েছে প্রচুর ।অনেক অনুগামীদের প্রশ্ন কিভাবে এত বছর বয়সের পর নিজেকে এত মেনটেন করে রেখেছেন তিনি? এবার সেই ব্যাপারে মুখ খুললেন স্বয়ং অভিনেত্রী । যদিও এ ব্যাপারে অনেকের মন্তব্য ছিল যে শ্রীলেখা মিত্র শারিরীক চাহিদা বা যৌ-ন-তার জন্যই এত যৌ-বনময় করে তুলেছে । কিন্তু শ্রীলেখা মিত্র দেওয়া উত্তর সম্পূর্ণ উল্টো।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে শ্রীলেখা মিত্র একটি ছবি শেয়ার করেছেন এবং জানিয়েছেন তার এই যৌ-ব-ন রূপের জন্য সে-ক্স নয় বরং এক্সেসাইজ মূল কারণ ।যা শুনে রীতিমতো হতবাক অনেকেই। তিনি একটি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন আমার ডাক্তারবাবু বলেছিলেন, যৌ-নতা নিয়ে আমাদের দেশে হাজার ট্যাবু। কিন্তু রোজের যৌ-নতারও প্রয়োজন আছে।

শারীরিক মি-ল-ন অবসাদ মুছিয়ে হ্যাপি হরমোনের ক্ষ-রণ বাড়ায়। তাই যৌ-ন-তা-র পর মানুষ অনেকটাই রিল্যাক্স হন। একই উপকার মেলে নিয়মিত শরীরচর্চা করলেও। আমি চেষ্টা করি নিয়মিত ঘণ্টাখানেক কি দেড়েক যোগাভ্যাসের। তার জন্যই এখনও ঝলমলে, সতেজ। এই কথাটাই বলতে চেয়েছি।’’

পুজোর আগে বাংলার এই অভিনেত্রী বেশ কিছুদিন সময় কাটিয়ে ছিলেন সুন্দরবন এবং তার সাথে সাথে সেখানকার ছেলেমেয়েদের দিয়েছিলেন শিক্ষা। সে ব্যাপারে অভিজ্ঞতা তিনি অবশ্য এর আগে তুলে ধরেছিলেন তার সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ।

তবে নভেম্বর মাসে তিনি সম্পূর্ণরূপে ব্যস্ত থাকবেন বাংলার ওয়েব সিরিজের কাজে ।তারপরে পুরনো চিত্রকলা ঘষে-মেজে দেখবেন একবার ।এমনটাই জানিয়েছেন শ্রীলেখা মিত্র। তবে তার এই ধরনের বক্তব্য এবং উক্তি রীতিমত অবাক করেছে অনেকে। তার সাথে সাথে সোশ্যাল মিডিয়ার ওই পোস্টে বেড়েছে লাইক এবং মন্তব্যের সংখ্যা ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button