নিউজভিডিও

বিবাহ বিচ্ছেদ কেয়ার করলেন না শ্রাবন্তী, তার আগেই দ্বিতীয় সন্তান আসার খবর দিলেন শ্রাবন্তী, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-বাংলা অভিনয় জগতে শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের নাম সকলেই আমরা জানি কিন্তু এই মুহূর্তে সবচেয়ে সহজ সমালোচিত একটি বিষয় সেটি হল আগামী দিনে শ্রাবন্তী সিং নাকি শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় থাকবে ? । কারণ সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এখন এই মুহূর্তে সমালোচনা চলছে শ্রাবন্তী সম্পর্ক কে নিয়ে ।

শোনা যাচ্ছে তৃতীয় সম্পর্ক রোশন সিং এর সঙ্গে নাকি এবার বিচ্ছেদ হতে চলেছে শ্রাবন্তীর আর সেটাকে নিয়ে শুরু হয়ে গেছে সমালোচনা । এমনকি শোরগোল পড়ে গেছে গোটা টলিপাড়ায় ।চ্যাম্পিয়ন সিনেমা দিয়েও তার অভিনয় জগত শুরু তারপর তাকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি একের পর এক হিট ছবি দিয়ে জয় করে নিয়েছেন লক্ষ্য লক্ষ্য দর্শকের মন । তারপরেই কোথাও যেন তার জীবন এলোমেলো হয়ে যায়।

অভিনয় জগতে থাকলেও ব্যক্তিগত জীবনে তেমন ভাবে সুখ মেলেনি এই অভিনেত্রী। ২০১৬ তে বিচ্ছেদ ঘটে পরিচালক রাজীব বিশ্বাস এর সাথে । প্রসঙ্গত উল্লেখ্য মাত্র ১৬ বছর বয়সে তিনি বিয়ে করেন রাজীব বিশ্বাসকে । এরপর ২০১৭ তে কিষান ব্রজ এবং ২০১৯ এ রোশন সিং কে বিয়ে করেন তিনি।

এবার সেই তৃতীয় সম্পর্ক ভাঙনের মুখে এমনটাই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে । তবে এরই মাঝে তার ছেলে অভিমুন্য চট্টোপাধ্যায় বেশ কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়া একটি পোস্ট শেয়ার করেছিলেন যাকে ঘিরে সমালোচনা এবং জল্পনা তুঙ্গে ওঠে ছিল। সেখানে মায়ের সাথে একটি পুরনো ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে জানিয়েছিলেন যে নতুন কিছু আসছে । তাহলে কি চতুর্থ সম্পর্কের কথা বলতে চাইছে ঝিনুক ? প্রশ্ন ছিল অনুগামীদের।

তবে সব সমস্যার অবসান এবার অভিনেত্রী নিজেই করলেন । সোশ্যাল মিডিয়ায় বলাবাহুল্য ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল একটি ভিডিও শেয়ার করে সমস্ত কিছু তুলে ধরলেন এবং তার নতুন অধ্যায়ের জন্য শুভেচ্ছা বার্তা ও ভালোবাসা চেয়ে নিলেন তার অনুগামীদের সাথে। এরই মধ্যে আসতে চলেছে তার দ্বিতীয় সন্তান ।

যা শুনে রীতিমত অবাক অনেকে অনেকে। তবে এই দ্বিতীয় সন্তান কোন রক্ত মাংশের সন্তান নয় বরং তার নতুন জিম ফিটনেস এম্পিয়ার । আজ্ঞে হ্যাঁ সম্প্রতি শ্রাবন্তী একটি নতুন সিমে সূচনা করেছেন যার নাম ফিটনেস অ্যাম্পিয়ার । এটি তার কাছে দ্বিতীয় সন্তান এর সমতুল্য এমনটাই জানিয়েছেন তিনি ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button