নিউজ

পুজোয় শ্রাবন্তীকে রোশন দিলেন এক দারুন উপহার, আনন্দে আত্মহারা অভিনেত্রী!

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন-অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর পুজো আমেজ টা একটু আলাদা রকম । পুজোর সেই আমেজটা আর নেই মনের মধ্যে । আনন্দটা যেন কেড়ে নিয়েছে মহালয়ার পর থেকে ৩৫ দিনে এই যাত্রা । যদিও এই যাত্রা দীর্ঘ বাঙালির কাছে । কিন্তু তবুও যতটা পারা যায় আনন্দ উপভোগ করার ততটাই আশাবাদী মন।

Advertisement

সাধারণ মানুষ থেকে তারকার কিভাবে কাটাবেন পুজো তা সত্যিই এখন কোন প্ল্যান নেই। আর বেশ কিছুদিন না গেলে কোন প্ল্যান করা সম্ভব নয়। তবে Zee 24 ঘন্টা ডটকমের সাথে পুজোর প্ল্যানিং কিছুটা হলেও শেয়ার করলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী। কি কি বললেন ? কি কি ছিল তার zee 24 ঘন্টা প্রশ্ন ? চলুন দেখে নেওয়া যাক ।

Advertisement

শ্রাবন্তী জানিয়েছেন এই মুহূর্তে বাইরে যা অবস্থা তাতে বাড়ির পরিবারের সঙ্গেই পুজো কাটাব ।মন খারাপ হলেও কিছু করার নেই।

Advertisement

১)কেনাকাটা কিছু করা হয়েছে?

Advertisement

শ্রাবন্তী : কেনাকাটা কিচ্ছু হয়নি, কিচ্ছু না। এত কাজের চাপ কেনাকাটার সময়ই পাচ্ছি না। আর সত্যি কথা বলতে অনলাইনে কেনাকাটা আমার পছন্দ নয় খুব একটা। চোখে দেখে ট্রায়াল দিয়ে কেনাকাটা না করতে পারলে পুজোর কেনাকাটার মজাটাই নেই। বাড়ির লোকজনের জন্যও কেনাকাটা করতে পারিনি। তবে কাজ শেষ করে, হাতে একটু সময় পেলেই পরিবারের জন্য ফটাফট কেনাকাটা সেরে ফেলব।

Advertisement

২) কি পড়বে পুজোতে?

Advertisement

শ্রাবন্তী : পুজোর সময় আমি এক্কেবারেই ‘ট্রাডিশনাল’ পরতে পছন্দ করি। পুজোতে আমি একদম বাঙালি, পারফেক্ট বাঙালি যাকে বলে (হাসি)। পুজোর সাজের জন্য আমি বাঙালিয়ানাতেই বিশ্বাসী। তাই অবশ্যই শাড়ি পরব। নাহলে একটু আনারকলি কিংবা ফিউশন চলতে পারে (হাসি)।

Advertisement

৩) সাজগোজ? মাস্ক পড়লে তো লিপস্টিক দেখাবে না?
শ্রাবন্তী : (থামিয়ে দিয়ে) না, না, মাস্ক পরলেও আমি লিপস্টিক পরি ও পরবোও। ওটা আমার পছন্দ। খুব খুব পছন্দ। (হাসি)

Advertisement

৪) কোনো পুজো উদ্বোধন করছেন এবার ?
শ্রাবন্তী :  পুজোর কোনও ওপেনিং থাকবে বা অনুষ্ঠানে যেতে হবে কিনা এখনও জানা নেই। কিছুই এখনও ফাইনাল হয়নি। আর এমনি বের হবো কিনা যদি জিজ্ঞেস করো, তাহলে পুজোতে একদমই বের হবো না বললে তো মিথ্যা বলা হয়। তবে যতটা কম বের হওয়া যায়। কাছের মানুষগুলোর সঙ্গেই সময় কাটানোটা বেশি ভালো।

Advertisement

তবে তিনি এটাও বলেছেন যে যতটা সম্ভব কম বেরিয়ে, সবকিছু পরিস্থিতি মাথায় রেখে, সবার সহযোগিতা করাটাই উচিত আমাদের ।

Advertisement
Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button