নিউজভিডিও

নিজের নিতম্বে হাত বোলানো সেই ভাইরাল ভিডিও নিয়ে এবার মুখ খুললেন নোরা ফতেহি!

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন:- সোশ্যাল মিডিয়া এমন একটি প্লাটফর্ম যেখানে প্রতিভা তুলে ধরা যায় ঠিকই কিন্তু তার পাশাপাশি সামান্য ভুল ত্রুটির জন্য শুরু হয়ে যেতে পারে সমালোচনার ঝড়। যেমন আছে সফলতা ঠিক তেমনই এক নিমিষে রাতারাতি স্টার থেকে হয়ে যেতে পারেন খিল্লির পাত্র।

Advertisement

তবে অনেক সময় সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে এবং তার সাথে ফটোশপ ব্যবহার করে অনেক ছবি বা ভিডিও বিকৃতি করে পোস্ট করা হয় । যাকে ঘিরে শুরু হয় সমালোচনা এবং বিতর্ক । তেমনই একটি ঘটনা ঘটে “সাকি গার্ল ” নোরা ফাতেহির সাথে । কি এমন ঘটে ? আসুন জানবো বিস্তারিত ভাবে।

Advertisement

ইন্ডিয়া বেস্ট ডান্সার রিয়েলিটি শো এর একটি ভিডিও থেকে শুরু হয় এই বিতর্ক । সেখানে বিচারক হিসেবে দেখা যায় তিন জনকে । গিতা , নোরা এবং ডান্স গুরু টরেন্স কে । ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে ওই দুইজন অর্থাৎ টরেন্স এবং নোরা কারোর উদ্দেশ্যে নমস্কার করছিল কিন্তু অনিচ্ছাকৃতভাবে টরেন্সের হাত স্পর্শ করে যায় নোরার হিপ কে । ব্যস ! শুরু হয়ে যায় তোলপাড় করা সব বিতর্ক, উত্তেজনা।

Advertisement

এটি একটি ইচ্ছাকৃত না অনিচ্ছাকৃত ভুল তা নিয়ে রীতিমতো কাঁপছে নেট দুনিয়া দুনিয়া নেট দুনিয়া দুনিয়া। তবে এ বিষয়ে এর আগে কোনো বক্তব্য না রাখলেও রীতিমত ধৈর্য্যের বাঁধ হারিয়ে মুখ খুললেন টরেন্স । তিনি একটি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট শেয়ার করে লেখেন যে সেদিন সেদিন আসলে কি ঘটেছিল ঘটেছিল এবং সেই পোষ্টটি কে সমর্থন জানিয়ে নোরা তার কমেন্ট সেকশনে লেখেন তার বক্তব্য।

Advertisement

স্লো মোশনে দেখানো ওই ভিডিওটি দেখলে মনে হবে যে টরেন্স সজোরে থাপ্পড় মারে নোরার নোরার হীপকে । কিন্তু তার শেয়ার করা পোস্টের কমেন্ট সেকশনে নোরার কমেন্ট, ‘‘ ধন্যবাদ টেরেন্স ! এখনকার সময়ে মিডিয়ায় ছবি বা ভিডিওর ফটোশপ করে অনেক বিকৃতিই ঘটানো হয় ৷

Advertisement

আমার খুব ভাল লাগছে যে বিষয়টা নিয়ে তুমি শান্তই থেকেছ ৷ তুমি এবং গীতা ম্যাডাম দু’জনেই আমার কাছে অনেক শ্রদ্ধার মানুষ ৷ এই শো-য়ের বিচারক হতে পেরে আমি খুশি ৷ অনেক সম্মান এবং ভালোবাসা পেয়েছি ওখানে ৷ অনেক কিছু শিখেছি ৷ খুব ভাল থাক ৷ ’’ । এখনো পর্যন্ত নেটিজেনদের মধ্যে সংশয় এর মাত্রা তুঙ্গে । কিন্তু বাস্তবে কি ঘটেছিল তা ইচ্ছাকৃত না অনিচ্ছাকৃত সে বিষয় রয়েছে সংশয় ।

Advertisement

Advertisement
Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button