নিউজ

এক বার টাকা দিলেই আজীবন 12,000 টাকা পেনশন দেবে LIC, প্রচুর লোকে করছে এই পলিসি, পড়ুন বিস্তারিত!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-ফের আরো একবার বড় ঘোষণা এলাইসির । আমরা আমাদের সারা জীবনের উপার্জন সঞ্চয় করে থাকি সাধারণত ব্যাংক এ । অধিক নিরাপত্তা থাকার দরুন দেশের অধিকাংশ মানুষ বলা বাহুল্য দেশের সমস্ত মানুষ ব্যাংকের মধ্যে সঞ্চয় করে থাকেন।

কিন্তু এর পাশাপাশি জীবন বীমার এক জনপ্রিয় সংস্থা হল এলআইসি। এটি ভারতের মধ্যে সবথেকে জনপ্রিয় সংস্থা। এই এলআইসি তাদের গ্রাহকদের জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকম সুযোগ-সুবিধা নিয়ে এসেছে। সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করে চলেছেন এখনো পর্যন্ত দেশের অনেক মানুষ ঠিক সেরকমই আরো একবার নতুন প্রকল্পের সূচনা করলো এলআইসি।

যেহেতু এই জীবন বীমা সংস্থাতে একবার বিনিয়োগ করলে সারাজীবন ধরে তা উপভোগ করার সুবিধা রয়েছে তাই অধিকাংশ মানুষ বেছে নিয়েছেন এই সংস্থাকে । এবং সেই সূত্রে এই সংস্থা হয়ে চলেছে দেশের জনপ্রিয় এবং নির্ভরযোগ্য । সম্প্রতি এলআইসি নতুন প্রকল্প শুরু করেছে যার নাম জীবন অক্ষয়।

সর্বাধিক সর্বনিম্ন এক লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করলে আপনি প্রতিমাসে ১২০০০ টাকা করে পেতে পারেন পেনশন। তবে সর্বাধিক এক্ষেত্রে কোন উর্ধ্বসীমা নেই এই প্রকল্পে। আসুন আমরা জেনে নেবো আরো বিস্তারিত এই প্রকল্প সম্বন্ধে।

অত্যন্ত জনপ্রিয় পলিসি জীবন অক্ষয় ৷ এই পলিসি বন্ধ করা হয়েছিল ৷ এই জনপ্রিয় পলিসিই ফের চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এলআইসি । পলিসি ধারকদের মাত্র একবার প্রিমিয়াম দিতে হবে ৷ একবার পিলিসির প্রিমিয়াম দেওয়ার পরে জীবনভর পেনশনের লাভ নিতে পারবেন । ১০টি বিকল্প রূপ দেওয়া হয়েছে।

জীবন অক্ষয় পলিসিতে Annuity payable for life at a uniform rate এর বিকল্প বেছে নিয়ে মাসে ৩৬ হাজার টাকা পায়ার সুবর্ণ সুযোগ থাকছে ৷উদাহরণ সরূপ বলা যেতে পারে ৭০,০০,০০০ টাকা সাম অ্যাসিয়োর্ড বিকল্প বাছলে এককালীন ৭১,২৬,০০০ টাকা জমা দিতে হবে ৷ এরপরেই প্রতি মাসে ৩৬,৪২৯ টাকা পাওয়া যাবে ৷ পলিসি ধারকের মৃত্যুর পরে পেনশন বন্ধ হয়ে যাবে ৷  এই ধরনের তথ্য সামনে আশাতে রীতিমতো আনন্দে উচ্ছ্বসিত এলআইসির গ্রাহকরা । আপনি যদি এই বিনিয়োগে অংশগ্রহণ করতে চান তাহলে আপনার বয়স অবশ্যই ৩৫ – ৮৫ বছর হতে হবে ।

মোট চারভাবে পাওয়া যায় পেনশনের টাকা। বার্ষিক পেনশনের ব্যবস্থা। সেক্ষেত্রে পলিসির নিয়ম অনুযায়ী বছরে একবার মোটা অঙ্কের টাকা পাওয়া যায়। বছরে দুবারও পেনশনের টাকা পাওয়া যায়। এছাড়াও রয়েছে ত্রৈমাসিক পেনশনের সুবিধাও, অর্থাৎ তিনমাস পরপর পেনশনের টাকা মিলতে পারে।

তবে বেশিরভাগই মানুষেরই মাসিক পেনশন প্রকল্পই পছন্দ। সেই সুবিধাও রয়েছে জীবন বিমন বিমা নিগমের এই পলিসিতে৷বিশেষজ্ঞ বা এজেন্টরা এই বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছে থাকেন। পলিসি করতে ইচ্ছুক থাকলে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিস্তারিত খোঁজখবর নিয়ে এই পলিসিতে নিজের নাম নথিভুক্ত করা যেতে পারে৷

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button