নিউজপলিটিক্স

“সরকারে না থাকলেও সাধারণ মানুষের দরকারে সবসময় সবার আগে পাশে থাকে বামপন্থীরাই”- ঐশী ঘোষ

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন:-সামনে একুশে ভোট যতই এগিয়ে আসছে রাজনৈতিক মহল গুলির প্রস্তুতি ততই চাঙ্গা হচ্ছে । কোথাও মানুষের পাশে থাকার আর্জি কোথাও ভুল বিশ্বাস ভেঙ্গে নতুন করে বিশ্বাস পাবার চেষ্টা । কোথাও তাদের পুরনো ভুল কে সনাক্তকরণ করে আগামী দিনে কি করা উচিত তার প্রয়াস , কোথাও আবার কটাক্ষ ।

Advertisement

এরকম করে একের পর পর এক দিন কেটে যাচ্ছে আর রাজনীতিক দল গুলি গুলি চালিয়েছে তাদের প্রস্তুতি। সম্প্রতি বামপন্থীদের একটি স্লোগান শোনা যাচ্ছে সেটি হলো ” সরকারে নয় দরকার আছি” অর্থাৎ তারা শ্লোগানের মাধ্যমে মানুষদেরকে আশ্বস্ত করতে চাইছেন এই বলে যে যে তারা ক্ষমতায় না থাকলেও তারা মানুষের পাশে আছে। কথাটা যে একদমই অবাস্তব তা কিন্তু নয়। এর প্রমাণ বামপন্থীরা এর আগে অনেকবার দিয়েছে। আরও একবার দেখালো বাঁকুড়ায়।

Advertisement

বামপন্থী সংগঠনগুলি মানুষদের স্বার্থে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন গুরুত্ব মূলক মূলক পদক্ষেপ নিয়েছে যা দিতে অক্ষম সরকার । এই জন্য অবশ্য প্রকাশ্যে অবশ্য প্রকাশ্যে গর্ব করে বলেছেন যে সরকার যে কাজটি ক্ষমতায় থেকে পারেনি আমরা অল্প ক্ষমতা থেকে সে কাজ করে দেখিয়েছি । কোথাও শ্রমজীবী বাজার , তো কোথাও শ্রমজীবী ক্যান্টিন। কোথাও আবার কমিউনিটি কিচেন যেখানে মিলবে অতি অল্প দামে পেট ভর্তি খাবার।

Advertisement

জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষ এ কথা আমরা সকলেই জানি এ কথা আমরা সকলেই জানি ঘোষ এ কথা আমরা সকলেই জানি এ কথা আমরা সকলেই জানি সভানেত্রী ঐশী ঘোষ এ কথা আমরা সকলেই জানি এ কথা আমরা সকলেই জানি ঘোষ এ কথা আমরা সকলেই জানি এ কথা আমরা সকলেই জানি ।

Advertisement

বেশ কিছুদিন আগে শিরোনামে উঠে এসেছিলেন এই বাম সমর্থক ছাত্রী নেত্রী ঐশী ঘোষ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে একথা আরো একবার তুলে ধরলেন যে বামপন্থীরা মানুষের দরকারে পাশে আছে । সম্প্রতি বাঁকুড়ায় তৈরি হওয়া কমিউনিটি কিচেন পরিদর্শন করতে গিয়ে সাংবাদিকদের জানান রাজ্য এবং দেশের কোটি কোটি মানুষ কাজ হারাচ্ছে । খাবারের উৎস খুঁজে পাচ্ছেন না ।সেই অবস্থায় বামপন্থী সংগঠনগুলির বিকল্প মডেল হিসেবে বিভিন্ন জায়গায় মানুষদের পাশে থেকেছে ।

Advertisement

শুধু মাত্র এখানেই থেমে এখানেই থেমে থেমে থাকেননি তিনি । এর পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষি বিলের বিরোধিতা করেছেন এবং বলেছেন সবচেয়ে পুরনো এন ডি এ সমর্থন করা মানুষ কৃষি বিলের বিরোধিতা করতে গিয়ে জোট থেকে বেরিয়ে এসেছে । সরকার এটা বুঝতে পারছে না যে আম্বানি আদানি হাতে সব কিছু বেশি দিলে দেশবাসীর ভাত জুটবে না।

Advertisement

বাঁকুড়ায় তৈরি হওয়া ওই ওই রান্নাঘরে কমিউনিটি কিচেন পরিদর্শন করতে আসেন জেএনইউ সভানেত্রী ঐশী ঘোষ। এর সাথে সাথে এসএফআইয়ের রাজ্য সভাপতি প্রতিকিউর রহমান উপস্থিত ছিলেন। ওই রান্নাঘইরে মাত্র ১৫ টাকা দিয়ে মিলবে একবেলা আমিষ খাবার ।

Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button