নিউজভিডিও

এবার কি তৃনমুলে পদার্পন বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সহ সভাপতি রাহুল সিংহা? নিজেই ভিডিও পোস্ট করে বিশেষ বার্তা রাহুলের, ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন :-সামনের একুশের ভোটকে মাথায় রেখে বিভিন্ন রাজনৈতিক মহলে চলছে জল্পনা। সাথে চলছে প্রস্তুতি ও। ভার্চুয়াল মিডিয়া থেকে শুরু করে রাজপথে সমাবেশ কোনটাই বাদ যায়নি। তবে আসন্ন বিধানসভা ভোট কে সামনে রেখে কে কে পেতে চলল গুরুদায়িত্ব? কে কে হারালো পদ?

সে বিষয়ে জানতে আগ্রহী রাজনৈতিক মহলের একাংশের থেকে সাধারণ মানুষেরা। কাকে ঘিরে শুরু হয়েছে ঘোর জল্পনা? কে দিল তার জবাব ? এসব কিছু প্রশ্নের মধ্যে রীতিমতো বিস্ফোরণ ঘটনা ঘটল আজ । কি এমন ঘটনা যা মুহূর্তের মধ্যে তোলপাড় করে দিলো নেট দুনিয়া ?

আজ কেন্দ্র বিজেপি কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করেছে । পশ্চিমবঙ্গের কথা মাথায় রেখে এনেছে বড় সড়ো পরিবর্তন । কি সেই এমন পরিবর্তন যা মুহূর্তে হলো ভাইরাল । কাঁপালো নেট দুনিয়া থেকে রাজনৈতিক মহল ?। এর পাশাপাশি মুকুল রায় কে ঘিরে ওঠা সব জল্পনার অবসান ঘটালো বিজেপি । সম্প্রতি মুকুল রায়কে ঘিরে অনেকের মনে প্রশ্ন ছিল যে এবার হয়তো বিজেপি থেকে দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে মুকুল রায়ের । সেই ঘটনাকে রীতিমতো ভুল প্রমাণ করে দিল বিজেপি ।বাদ পড়ে গেল দাপুটে নেতা।

একুশের সভাকে পাখির চোখ করে এগিয়ে যাওয়া বিজেপিতে নতুন পদে দায়িত্ব অর্পন করা হল। বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতির পদে স্থান পেলেন মুকুল রায়, অনুপম হাজরা হলেন সর্বভারতীয় সম্পাদক। সেই সঙ্গে বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র হলেন দার্জিলিঙের সাংসদ রাজু বিস্তা। বাদ পড়ে গেলেন রাহুল সিনহা ।

ওনাকে এবার কেন্দ্রের আর কোনও বড় দায়িত্বে রাখা হয়নি। ওনার যায়গায় মুকুল রায়কে দেওয়া হয়েছে গুরু দায়িত্ব। পদ হারানর পর বিস্ফোরক মন্তব্য করেছে রাহুল সিনহা। একরি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে তিনি বলেছেন, জন্মলগ্ন থেকে বিজেপি করে আসছি, আর সেটার উপহার আজ হাতেনাতে পেলাম।

এর পাশাপাশি তিনি ভিডিওতে বিস্তারিতভাবে জানিয়েছেন ” যে দীর্ঘ চল্লিশ বছর ধরে জন্মলগ্ন থেকে বিজেপি করে আসছি। কোন এক তৃণমূল থেকে আসা নেতার জন্য আমাকে সরতে হলো। আমি এখন কিছু বলবো না যা বলার, যা উত্তর দেওয়ার আমি দশ বারো দিনের মধ্যে দেবো ।

তবে বিজেপি থেকে পাওয়া এই পুরস্কার সম্পর্কে আমার পক্ষে বা বিপক্ষে কিছুই বলার নেই। তার এই বক্তব্য শুনে রীতিমতো বোঝা যাচ্ছে বেশ হতাশ হয়েছেন তিনি । তার সাথে সাথে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন বিজেপির প্রতি । যদিও রাজনৈতিক মহলে বেড়েছে উত্তেজনার পারদ । এলহন দেখার অপেক্ষা যে ১০-১২ দিনের ভিতর কি জবাব দেয় রাহুল সিনহা ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button