নিউজ

‘ভারতবর্ষের অর্থনীতি বি’পর্য’স্ত, এর জন্য একমাত্র দায়ী মোদী’- প্রকাশ্যে মোদীকে তো’প দাগালেন রাহুল!

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন :-প্রত্যেকেই চাই অর্থাৎ প্রত্যেক রাজনৈতিক দলের সর্বোচ্চ নেতা মন্ত্রীরা চায় যে তার দল দেশের ক্ষমতায় আসুক। তার দল আগামী দিনে দেশ চালাক । এই ধরনের ইচ্ছে কমবেশি সমস্ত রাজনৈতিক দলের থাকে । তাই তার জন্য চলে নিরন্তন পরিশ্রম । নিজের দল কিভাবে এগিয়ে যাবে সে ব্যাপারে প্রত্যেকেই প্রতিজ্ঞাবদ্ধ । বিরোধী দলগুলি থেকে আপ্রাণ চেষ্টা থাকে যে শাসক দলকে পরাজয় করে নিজে সে জায়গায় পৌঁছানোর । সেই জন্য মানুষের সামনে বারবার তুলে ধরে শাসক দলের বিভিন্ন খামতি।

Advertisement

আমি উপরে কথাগুলো এই কারণেই বললাম কারন যত ভোট এগিয়ে আসছে রাজ্যের উপর বিজেপিকে লক্ষ্য করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলি মানুষজনকে মনে করিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে যে ক্ষমতায় আসার আগে বিজেপি কী কী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল এবং বর্তমান যুগে বা বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে তার মধ্যে ঠিক কতগুলি পূর্ণ হয়েছে।

Advertisement

এই কাজে অবশ্য পিছিয়ে নেই কংগ্রেস । এর আগে আমরা দেখেছি কংগ্রেসের রাহুল গান্ধী বিভিন্ন রকম প্রতিবাদে সরব হয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বিরু-দ্ধে। বলাবাহুল্য কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে ।আরও একবার নিজের টুইট করে সেরকমই কিছু তথ্য তুলে ধরেছেন জনগণের সামনে এবং প্রশ্ন রেখেছেন জনগণের কাছে ।

Advertisement

দেশের এই আর্থিক অবস্থা জন্য শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় সরকার এবং কোভিড দায়ী।। এমনই বিস্ফোরণ মন্তব্য করেছেন রাহুল গান্ধী। তিনি টুইটে লিখেছেন কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যগুলিকে জিএসটি বাবদ রাজস্ব দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।  অর্থনীতি বিপর্যস্ত প্রধানমন্ত্রী ও কোভিডের জন্য।

Advertisement

প্রধানমন্ত্রী কর্পোরেট সংস্থাগুলিকে ১.৪ লক্ষ কোটি টাকা কর ছাড় দিয়েছেন। ৮ হাজার ৪০০ কোটি টাকা দিয়ে নিজের জন্য ২টি বিমান কিনেছেন।  এখন কেন্দ্রের হাতে রাজ্যগুলিকে দেওয়ার  জন্য আর টাকা নেই। অর্থমন্ত্রী রাজ্যগুলিকে ঋণ নিতে বলেছেন।  কংগ্রেস সাংসদের বিভিন্ন রাজ্যের বাসিন্দাদের কাছে প্রশ্ন, আপনাদের মুখ্যমন্ত্রী কেন আপনাদের ভবিষ্যত্‍-কে মোদির জন্য গচ্ছিত রাখবেন?

Advertisement

এর আগে আমরা কৃষি বিল নিয়ে রাহুল গান্ধীকে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখেছিলাম। এবার দেশের অর্থনীতির বেহাল অবস্থার জন্য সরব হলেন তিনি এবং আঙুল তুললেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে । যদিও এ ব্যাপারে এখনও কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি। ।

Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button