নিউজ

রাষ্ট্রসংঘে বড় জয়জয়াকার ভারতের! গুরুত্বপূর্ণ পদে নির্বাচিত হলেন বাঙালী কন্যা বিদিশা মৈত্র!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-ফের আরও একবার জয় বাঙ্গালীর ! জয় ভারতের । অ্যাডভাইসরি কমিটি অন অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অ্যান্ড বাজেটরি কোয়েশ্চেন্সের সদস্য পদে জয়লাভ করলেন কূটনীতিক বিদিশা মৈত্র। প্রতিযোগী ইরাকের কূটনীতিক আলি মহম্মদ ফায়েক আল-দাবাগকে হারিয়ে অ্যাডভাইসরি কমিটি অন অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অ্যান্ড বাজেটরি কোয়েশ্চেন্সের সদস্য পদে জয়লাভ করলেন কূটনীতিক বিদিশা মৈত্র।

তার হাত ধরে রাষ্ট্রপুঞ্জের গুরুত্বপূর্ণ পদে স্থান হলো ভারতের।এই ঘটনা ফের আরও একবার প্রমাণ করে দিল যে বাঙালি থেমে থাকার পাত্র নয়।বেশ কিছুদিন আগে মানবাধিকার লঙ্ঘনে প্রশ্ন তুলে মারাত্মকভাবে আক্রমণ করেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কে এই বিদিশা মৈত্র ।

সে ঘটনা সংবাদ মাধ্যমে বেশ গুছিয়ে প্রকাশিত করা হয়েছিল। শুধু মাত্র এখানেই তাঁর সাফল্যের জয়যাত্রা থেমে নেই । এর পাশাপাশি রাষ্ট্রসংঘের অর্থ ও বাজেট বরাদ্দ নিয়ন্ত্রক কমিটির সদস্য হিসাবে ২০০৮ সালে নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।

স্পষ্ট বাংলা বলতে পারা দিল্লির এই বাঙালি কূটনীতিক বিদিশা মৈত্র পেয়েছেন ১২৬টি ভোট এবং অপরদিকে তার প্রতিদ্বন্ধী আলি মহম্মদ ফায়েক আল-দাবাগ পেয়েছিলেন ৬৪টি ভোট।২০২১ সালের ১ লা জানুয়ারী থেকেই এই সদস্য পদে আসীন হবেন বিদিশা মৈত্র। তাঁর কার্যকালের মেয়াদ থাকবে ৩ বছর।

এর পাশাপাশি আগামী বছর থেকেই রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্যপদে ২ বছরের জন্য থাকবে ভারত। অর্থাৎ ভারতের দিকে এবার পাল্লা ভারী হতে চলেছে। বিদিশার এই জয়ে রাষ্ট্রসংঘে ভারতের স্থায়ী দূত টি এস তিরুমূর্তি জানিয়েছেন, ‘ভারতের প্রতি রাষ্ট্রসংঘের সদস্য দেশগুলির সমর্থনের নিদর্শন হল বিদিশার জয়।

আমি আশাবাদী, আগামী দিনে বিদিশা নিশ্চয়ই তাঁর পদে লক্ষণীয়, লিঙ্গবৈষম্যহীন এবং নিরপেক্ষ ভূমিকা গ্রহণ করবেন’। ভারতের এই সাফল্য আগামী দিনে ভারতকে অন্যান্য দেশের তুলনায় আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে মনে করছে অনেকে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button