নিউজ

অসমে ছেলেদের থেকে মেয়েদের মদের নেশা বেশি, বাঙালি মেয়েদের বেশি পছন্দ বিড়ি-সিগারেট! জানালো সরকারি সমীক্ষা!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-উৎসব বা কোন অনুষ্ঠান বাড়ি শরীরে একটু পরিমাণে মদের সমাগম হয়ে থাকে আমাদের সকলের মধ্যে । অর্থাৎ আমাদের মধ্যে কমবেশি একবার দুবার হলেও কেউ না কেউ মদ খেয়েছি । তবে ডাক্তারি পরিভাষায় শরীরে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অ্যালকোহল থাকা অত্যন্ত জরুরী যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে।

সাধারণত আমরা মাতাল বলে যার কথা মাথায় প্রথমে আছে সেটি হলো ছেলে বা পুরুষ প্রজাতির। কারন পুরুষ বা ছেলেরা সব থেকে বেশি মদ্যপান করে থাকে। কিন্তু এমন এক চা-ঞ্চল্য-ক-র তথ্য উঠে এসেছে যেখানে বলা হচ্ছে যে দেশে এমন বেশ কয়েকটি জায়গা রয়েছে যেখানে ছেলেদের কে পিছনে ফেলে দিয়েছে মেয়েরা মদ্যপানে প্রতিযোগিতায়।

২০১৯-২০২০-র এই সমীক্ষা বলছে, মেয়েদের মদের নেশায় সব থেকে পিছিয়ে চণ্ডীগড় ও লাক্ষাদ্বীপ। মহিলাদের মদ খাওয়া এখানে ০ শতাংশ। এরপর নাগাল্যান্ড, গোয়া, কর্নাটক ও হিমাচল প্রদেশের মেয়েদের মদের নেশা কম। ১৫ থেকে ৫৪ বছরের মেয়েদের মধ্যে এই সব রাজ্যে মদ খাওয়ার প্রবণতা মাত্র ০.১ শতাংশ। তবে নাগাল্যান্ডের ব্যাপারটা মজার। যে ০.১ শতাংশ মহিলা সেখানে মদ খান, তাঁদের ৬৫.৫ শতাংশ সপ্তাহে অন্তত একদিন মদ খাবেনই। অসমে আবার ছেলেদের থেকে মেয়েদের মদের নেশা বেশি।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতর জানাচ্ছে, গোটা দেশে মহিলাদের মদের নেশায় এক নম্বরে রয়েছে অসম। এখানকার ২৬.৩ শতাংশ মহিলা নিয়মিত মদ্যপান করেন। ছেলেদেরও এ ক্ষেত্রে পিছনে ফেলে দিয়েছেন তাঁরা। এ ধরনের চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আসে রীতি মত অবাক অনেকেই । তার সাথে সাথে কারো কারোর আবার উড়ছে রাতের ঘুমও ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button