নিউজ

‘মারলে মারবে, কিন্তু মানুষের সেবা করা ছাড়তে পারব না’,- দিলীপকে জবাব দিলেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-আর মাত্র কয়েকটি মাস । পরে রাজ্যজুড়ে লাগছিল সে ভোটের হাওয়া । সেইমতো প্রস্তুতি তুঙ্গে। রীতিমতো মাঠে নেমে কাজ শুরু করে দিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলি । বিনা যুদ্ধে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে নারাজ কেই । চলেছে লড়াই । কেন হবে আগামী দিনে রাজ্যের শাসক দল টা নিয়ে রয়েছে সংশয় । তবে এই বাংলায় পদ্মফুল ফোটাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে বঙ্গ বিজেপি।

ভোটের আগে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে কটাক্ষ বা কাদা ছোড়াছুড়ি হবে এমন ঘটনা খুব স্বাভাবিক। কিন্তু এই ঘটনা স্বাভাবিক হলেও সম্প্রতি বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তৃণমূলের বিরুদ্ধে যে মন্তব্য করেছে তা নিতান্তই প্রশ্নের মুখে ফেলেছে বিজেপিকে।

রবিবার সন্ধ্যায় পূর্ব মেদিনীপুরে এক জনসভা থেকে তৃণমূলের উদ্দেশে কড়া আ-ক্র-মণ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বলেন, ‘আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লোকজন, যাঁরা দুষ্টুমি করে তাঁদের বলছি, আগামী ৬ মাসের মধ্যে নিজেদের শুধরে নিন। আর তা না হলে তাঁদের হাত–পা, পাঁজর, মাথা ভেঙে দেওয়া হবে।

এমন অবস্থা করা হবে যে বাড়ি যাওয়ার আগে তাঁদের হাসপাতালে যেতে হবে।’‌রাজ্য বিজেপি সভাপতি এর পরই রীতিমতো হু-ঙ্কা-র দিয়ে বলেন, ‘‌তৃণমূলের লোকজন যদি নিজেদের সংযত না করেন তা হলে একেবারে শ্ম-শা-নে পাঠিয়ে দেওয়া হবে তাঁদের।’

তবে থেমে থাকার পাত্র তৃণমূল আর নয়। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে নগর উন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানান যে ‘বিজেপি গুন্ডাদের দল। তাদের কাছ থেকে এমন কথাই স্বাভাবিক। বিজেপি মারলে আমরা মার খাব। কিন্তু মানুষের সেবা করা বন্ধ করতে পারব না। সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে আমাদের ধর্মনিরপেক্ষতার আন্দোলন জারি থাকবে। আমাদের কথা বলার অধিকার কেউ কেড়ে নিতে পারবে না।’ মন্ত্রী এই ধরনের মন্তব্য বড়োসড়ো চাপে ফেলেছে গেরুয়া শিবির কে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button