নিউজ

‘বেকারদের জন্য এতদিনে একটা চাকরীর ব্যাবস্থাও করতে পারলোনা, উনি আবার প্রধানমন্ত্রী’ মোদীকে তোপ রাহুলের!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-আর মাত্র কয়েকটা দিন তারপর বিহারের নির্বাচন । এবং সে নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলি একে অপরের বি-রু-দ্ধে কটাক্ষ করতে বিন্দুমাত্র পিছপা হচ্ছেন না । ঠিক সেরকমই কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষো-ভ উগরে দিলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী ।

তুলে ধরলেন কেন্দ্রীয় সরকার তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অনেক ব্যর্থতা যা বিহার বাসীর কাছে আ-ত্মগো-পন করে রাখা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি। এর পাশাপাশি তিনি তুলে ধরেছেন বেকারত্বের সংখ্যা। প্রধানমন্ত্রী কর্মসংস্থান জোগাতে ব্যর্থ তার নিকৃষ্ট প্রমাণ তিনি দিয়েছিলেন ওই দিন থেকে।

বিহারের চম্পারন এ নির্বাচনের আগে প্রথম সভা করেন রাহুল গান্ধী । এবং ওই সভা থেকে একরাশ ক্ষো-ভ উগরে দেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে ।তিনি বলেন যে প্রধানমন্ত্রী ২০১৪ সালে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে চিনি কারখানাগুলো চালু করবেন তিনি এবং এখানে এসে চা খেয়ে যাবেন । আপনারাই বলুন তিনি কি এখানে এসে চা খেয়েছেন ? শুধু মাত্র এখানেই থেমে থাকেননি তিনি ।

আরো বলেছেন যে নিজের খামতি ঢাকতে প্রধানমন্ত্রী বেকারত্ব নিয়ে কোন কথা বলেন না বলেও দাবি করেন রাহুল। ”আজকাল বেকারত্বের প্রসঙ্গ মুখেই আনেন না প্রধানমন্ত্রী। কারণ উনি জানেন, বিহারের মানুষ আর ওঁর মিথ্যে প্রতিশ্রুতি বিশ্বাস করবেন না। বিহারের মানুষকে কাজের খোঁজে অন্য রাজ্যে যেতে হবে কেন?

ঐদিনের ঐ সভা থেকে রাহুল গান্ধী তুলে ধরে কৃষক বিরোধী কৃষি বিল এর কথা। তিনি বলেন যে আমরা সকলেই জানি গ্রামছাড়া শহর সম্পূর্ণরূপে অচল ।কিন্তু সেই কৃষকের জীবন অনিশ্চয়তায় ফেলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি ।যে ভুল নিতিশ কুমার করেছিল ২০০৬ সালে একই ভুল করছে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি ।

এর পাশাপাশি রাহুল গান্ধী বলেন যে বৃটেনের মহা শক্তিধর দেশের বি-রু-দ্ধে লড়াই করার প্রথম বীজ স্থাপন করেছিলেন মহাত্মা গান্ধী এই বিহারের চম্পারন থেকে। কারণ জানে এখানে আসল ভারতে লুকিয়ে আছে সেই বিহারের ছেলেমেয়েদের কাজ করতে ব্যাঙ্গালোর, হরিয়ানা কেন যেতে হবে ? এরূপ একাধিক প্রশ্ন তুলে বিহার বাসীকে আশ্বস্ত করেছেন যে আগামী দিনে যদি কংগ্রেস আরো একবার কেন্দ্রের ক্ষমতায় আসে তাহলে তারা ফের আবার দেখিয়ে দেবে কিভাবে চালাতে হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button