নিউজ

“আমি রামভক্ত, অ’ভিযো’গ মিথ্যে হলে সব পুরস্কার ফিরিয়ে দেব”, হুঙ্কার দিলেন কঙ্গনা

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন:-সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ-ত্যু ঘিরে বেশ কিছুদিন আগে রমরমা পরিবেশ ছিল বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে। এই মামলাকে ঘিরে উঠে আসে স্বজনপোষণ এবং ড্রা-গ-স কানেকশনের কথা। সেই মতো স্বজনপোষণ ও ড্রাগস কানেকশনের তালিকায় জুড়ে যেতে থাকে একের পর এক তারকা থেকে পরিচালকদের নাম । চলতে থাকে কটাক্ষের পর পাল্টা কটাক্ষ । তবে এই বিতর্কে মঞ্চ থেকে সবার আগে যে নামটা উঠে আসে সেটি হল কঙ্গনা রানাউত । যাকে বলিউডের কুইন বলা হয় ।

Advertisement

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য কিছুদিন আগে মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাটে ঝু-ল-ন্ত দেহ উদ্ধার হয় অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের। তাঁর মৃ-ত্যু কে ঘিরে চলতে থাকে বিতর্ক । এক দলের বক্তব্য এটি একটি সাধারণ আ-ত্মহ-ত্যা । এবং অন্য দলের বক্তব্য এটি নিছক একটি পরিকল্পনা মাফিক খু-ন ।

Advertisement

তবে এই তর্কবিতর্কের ঝড়ে সব থেকে বেশি শিরোনামে উঠে আসে কঙ্গনা রানাউত । তিনি এই মামলাকে ঘিরে একের পর এক করতে থাকেন বিস্ফোরক মন্তব্য । এবং রীতিমত জড়াতে থাকেন বিতর্কে । তিনি একে একে তুলে ধরেন সেই সমস্ত মানুষদের পরিচয় যারা সরাসরিভাবে স্বজনপোষণ বা ড্রাগস কানেকশন এর সাথে যুক্ত আছেন।

Advertisement

এর পাশাপাশি কঙ্গনা রানাউত সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি ভিডিও পোস্ট করেন সেই সময়। সেখানে তিনি বলেন যে তিনি যদি এটা প্রমাণ করতে না পারেন যে এই সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ-ত্যু একটি পরিকল্পনা মাফিক খু-ন তাহলে অভিনয় জগৎ থেকে পাওয়া সমস্ত পুরস্কার তিনি ফিরিয়ে দেবেন। রীতিমতো তিনি এইরকম একটি বড় চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন সবার সামনে । কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি বলছে সম্পূর্ণ উল্টো কথা । এই মুহূর্তে বিপাকে কঙ্গনা রানাউত।

Advertisement

বেশ কিছুদিন আগে ফরেনসিক বিভাগ জানিয়েছেন যে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ-ত্যু একটি নিছকই আ-ত্ম-হ-ত্যা । এর পিছনে কোন আলাদা চক্রা-ন্ত নেই । এমনকি তার দে-হ থেকে কোনো আ-ঘা-তে-র চিহ্ন পাওয়া যায়নি। এবার সেই মন্তব্য ঘিরে শুরু হয়েছে টুইটারে ক্যাম্পেইন , হ্যাশট্যাগ ঝড় ” #kanganaawardwapaskar । আর এতেই রীতিমতো বিপাকে পড়েছে বলিউড কুইন।

Advertisement

তিনি মেজাজ হারিয়ে সেই পুরনো ভিডিওটিকে আবার রি-টুইট করেছেন এবং বলেছেন , ‘এই হল সেই সাক্ষাৎকার। স্মৃতিশক্তি দুর্বল হলে ফের একবার দেখে নিন। আমার একটা অভিযোগও যদি মিথ্যে বা ভিত্তিহীন হয়, তাহলে সমস্ত পুরস্কার ফিরিয়ে দেব। একজন ক্ষত্রিয় কথা দিচ্ছে। আমি রামভক্ত। জীবন চলে গেলেও কথার খেলাপ করব না। জয় শ্রী রাম।

Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button