নিউজভিডিও

মুরগির মাংস দিয়ে দারুন কায়দায় একসাথে এক-দেড় কেজি মাছ করার দারুন কায়দা, দেখে নিন ভাইরাল ভিডিও

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন:-গানের কথাতেই আছে “দেখুক পাড়া পড়শিতে কেমন মাছ ধরেছি বড়শিতে” কিন্তু এখন আর ঠিক আগের মতন মাছ ধরার অতটাও প্রচলন নেই । ধরে বলতে শুধু ওই মাছচাষিরা। তবে আগেকার মতন সাধারন মানুষেরা যে বড়শি নিয়ে মাছ ধরতে বসবে তেমন আর ছবির দেখা মেলে না। যদিও গ্রাম গঞ্জের দিকে একটা দুটো জায়গায় দেখা যায়। কিন্তু শহরের দিকে এসব এর বালাই নেই ।কিন্তু এমনটা যদি হয় সারাদিন বসে রইলাম পুকুর ধারে উঠলো না একটিও মাছ ।

Advertisement

তাহলে ? মন খারাপ তো করবেই । কিন্তু আজ আপনাদের সামনে এমন একটি ভিডিও দেখাতে চলেছি যা থেকে আপনারা সহজে বরশি ছাড়াই ধরতে পারবেন অনেক মাছ তাও আবার একসঙ্গে। কি বলছেন মশাই? বড়শী ছাড়া মাছ ধরা সম্ভব নাকি? হ্যাঁ অবশ্যই সম্ভব। আসুন দেখে নেওয়া যাক ভিডিও ।সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখানো হচ্ছে যে কিভাবে খুব সহজে ধরা মাছ ধরা যায় শুধুমাত্র উপযুক্ত বুদ্ধির সাহায্যে ।

Advertisement

আমরা মাছ ধরার ক্ষেত্রে সাধারণত বড়শিতে একটি হুক লাগিয়ে রাখি এবং সেখানে মাছের খাবার দিয়ে থাকি । যার ফলে জলের তলায় যখন সেই যাই মাছ সেই খাবারটি খেতে গিয়ে আটকে যায় । ব্যাস হয়ে গেল কুপোকাত। ধরে ফেললাম বড় সাইজের একটি মাছ ।কিন্তু এই প্রচেষ্টা সফলতা থেকে বিফলতা বেশি দেখা যায়।ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এক যুবক একটি মুরগিকে অর্থাৎ একটি মুরগিকে ভালো মতন পরিষ্কার করে তার গায়ে বিভিন্ন জায়গায় কাটা বা হুক লাগিয়ে রেখেছে।

Advertisement

এবং সেই মুরগিটিকে আস্তে আস্তে দড়ি বা হাতের সাহায্যে জলের তলায় ডুবিয়ে দিচ্ছে ।এর ফলে মুরগির গন্ধে মাছগুলি আকৃষ্ট হচ্ছে ।এবং সেটিকে খাবার ভেবে খেতে আসছে। ফলস্বরূপ মুরগির গায়ে আটকে থাকা কাঁটাতে সহজে আটকে যাচ্ছে অনেক মাছ একসাথে।এই ঘটনাটা অবলম্বন করলে আপনি কম সহজে অনেকগুলো মাছ একসাথে ধরতে পারবেন। সাথে লাগবেনা বড়শী। তাহলে অপেক্ষা কিসের আজই বাজার থেকে কিনে আনুন মুরগি, লাগিয়ে ফেলুন কাটা, আর ধরে ফেলুন মাছ অনেক গুলো একসাথে ।

Advertisement

 

Advertisement
View this post on Instagram

 

Advertisement

A post shared by Debasish Dey (@debasish.dey.1253236) on

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button