নিউজভিডিও

৪০ বছরে এই প্রথমবার, ছেলের জন্য চরম অপদস্ত হতে হলো কুমার শানুকে, প্রকাশ্যে চাইলেন ক্ষমাও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-জাতীয়তাবাদের মেরুদন্ড সর্বদা শক্ত এবং সোজা রাখা উচিত । অর্থাৎ নিজের ভাষা বলা বাহুল্য নিজের মাতৃভাষা সম্পর্কে কোথাও কটুক্তি কথা শুনলে তা মুহূর্তের মধ্যে প্রতিবাদ করা উচিত । সেটা যেকোন ধরনের ভাষা হতে পারে । বাংলা ভাষা মারাঠি ভাষা হিন্দি ভাষা যেকোনো ধরনের ভাষা হতে পারে। মাতৃভাষার অপমান মানে নিজের মায়ের অপমান। ঠিক সেরকমই মারাঠি অর্থাৎ মহারাষ্ট্রের বাসিন্দারা তাদের মাতৃভাষা অপমান হতে দেয় না কোন দিনই । এই ঘটনা প্রমাণ সেটি।

বিখ্যাত কিংবদন্তি গায়ক কুমার শানুর কথা আমরা সকলে জানি । হিন্দির পাশাপাশি বাংলা তো বেশ কয়েকটি গানে তিনি পেয়েছিলেন জনপ্রিয়তা । দীর্ঘ সঙ্গীতজীবনে পেয়েছেন প্রচুর পুরস্কার ও তার সুরেলা কন্ঠ দিয়ে তিনি জয় করে নিয়েছেন লক্ষ লক্ষ দর্শকের মন। শুধুমাত্র এ দেশ নয় এ দেশের বাইরে রয়েছে তার অনুগামী সংখ্যা। কিন্তু অবশেষে এত বছর পর তাকে নোয়াতে হলো মাথা।

সালমান খান পরিচালিত বিগবসের সম্প্রতি সিজনে অংশগ্রহণ করেন কুমার শানুর ছেলে জান কুমার শানু এবং সেখানে ঘটে বিপত্তি । এর আগে আমরা একটি সাক্ষাৎকারে শুনেছিলাম যে কুমার শানু বারবার বারণ করেছিলেন তার ছেলেকে এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে ।

কিন্তু সেই কথা কে উপেক্ষা করেই কুমার শানুর ছেলে জান এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন এবং এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে তিনি তুলে ধরেন বাবার ব্যর্থতাকে । তিনি বলেন যে তিনি বড় হয়ে উঠেছেন বাবার সাহায্য ছাড়াই । তার বাবা তাদের দেখভাল করে না এমনই বি-স্ফো-রক মন্তব্য করেছিলেন কিছুদিন আগে কুমার শানুর ছেলে। এবার সেই ছেলের জন্য ক্ষমা চাইতে হলো প্রকাশ্যে কুমার শানু কে।

বিগ বস’-এর মঞ্চ থেকে মারাঠি ভাষা কে অপমান করার জন্য প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হলো কুমার শানু কে । যদিও এ কাজ তার ছেলে করেছে । অর্থাৎ জান বিগবসের মঞ্চ থেকে মারাঠি ভাষা কে অপমান করেছিল তাই এরকম ভাবে মাথা নোয়াতে হলো তার বাবা কুমার শানু কে ।

একটি সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন ” দীর্ঘ চল্লিশ বছরে তিনি কখনো মাথা নত করেননি । কিন্তু আজ শুধুমাত্র ছেলের জন্য তাকে মাথানত হলো । বয়স কম সাবধানে চলাফেরা করা উচিত । এর আগে বারবার আমি বারণ করেছিলাম এই প্রতিযোগিতায় যেন অংশগ্রহণ না করে । কিন্তু সে আমার কথা উপেক্ষা করেই এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে । তার ফল আজ আমায় ভুগতে হচ্ছে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button