নিউজ

‘ধ’র্ষণের সাজা মৃ’ত্যুদণ্ড, বাংলাদেশে বদলে গেলো আইন, প্রস্তাব সায় পেলো মন্ত্রিসভার!

Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা: ধ-র্ষ-ণ মাম-লার জন্য মৃ-ত্যুদণ্ডের প্রবর্তন করতে চলেছে বাংলাদেশ। আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, “রাষ্ট্রপতি মঙ্গলবার আইন তৈরি করে একটি অধ্যাদেশ জারি করবেন।” গত সপ্তাহে 37 বছর বয়সী এক মহিলার উপর নৃ-শংস গ-ণ-ধ-র্ষণে-র ঘটনার ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। এই ঘটনার পর গত সপ্তাহে বাংলাদেশে ব্যাপক ক্ষো-ভের সৃষ্টি হয়েছিল।গত সপ্তাহে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি দেখার পর বি-ক্ষো-ভ প্রদর্শন করেন সেখানকার জনগন। বি-ক্ষো-ভকারীরা দ্রুত বিচার ও ধর্ষ-ণের মা-ম-লা-র বিচারের পদ্ধতি পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছে।

Advertisement

বাংলাদেশের জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের ত-দ-ন্তে দেখা গেছে, নোয়াখালীর দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় জেলায় ওই মহিলাকে সময়ের বারবার ধ-র্ষ-ণ করা হয়েছিল। ভিডিওটি প্রকাশের পরে আট জনকে গ্রে-প্তা-র করা হয়েছিল।অন্য একটি মা-ম-লা-য় সিলেট জেলার উত্তরাঞ্চলীয় একটি হোস্টেলে গত সপ্তাহে এক মহিলাকে গ-ণ-ধ-র্ষ-ণ করা হয়েছিল, যার ফলে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠনের বেশ কয়েকজন সদস্যকে গ্রে-প্তা-র করা হয়েছিল।সেই সব ঘটনার পর তু-মু-ল বি-ক্ষো-ভ হয় দেশ জুড়ে। বিক্ষো-ভের প্র-ত্য-ক্ষ প্রতিক্রিয়া হিসাবে, সরকার অধ্যাদেশের মাধ্যমে ধ-র্ষ-ণে-র শাস্তি পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং কার্যকরভাবে এটি সরাসরি আইনে রূপান্তর করেছে।

Advertisement

সরকারের এই মৃ-ত্যুদণ্ড প্রবর্তনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে সকলেই। তবে ধ-র্ষ-ণে-র পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়া প্রসঙ্গে, অনেকই বলেছেন যে বাংলাদেশে যৌ-ন হিং-সার প্রতি মনোভাব বদলাতে মৃ-ত্যুদণ্ডের চেয়ে আরও বেশি কিছু দরকার।

Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button