নিউজবাঙ্কিং খুঁটিনাটি

ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের জন্য বড় সুখবর! সংসদে পাশ হয়ে গেলো নতুন ব্যাঙ্কিং বিল, এবার থেকে বিশেষ সুবিধা পাবেন প্রত্যেক গ্রাহক!

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদন :-চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে রাজ্যসভার পাশ হয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ৭ টি বিল । বিল গুলি পাশ করিয়েছেন মোদি সরকার । কার্যত বিরোধী শুন্য রাজ্যসভা থাকার সময়কে হাতিয়ার করে একের পর এক বিল পাশ করিয়েছেন কে মোদি সরকার । সম্প্রতি কৃষি বিল নিয়ে ব্যাপক চা-ঞ্চ-ল্য ছড়ায় দেশের মধ্যে । এর পাশাপাশি অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের তালিকা প্রকাশ করে ওই দিন ।

Advertisement

তাতে বাদ পড়েছে বহু নিত্যনতুন জিনিস পত্র ।এবার সেই সরকার ব্যাংক এর গ্রাহকদের জন্য আনলো নতুন নিয়ম।১৯৪৯ সালের তৈরি ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্ট  সংশোধন করার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র । ওইদিন রাজ্য সভায় ব্যাংক ও তার গ্রাহকদের সুবিধা সম্পর্কে একটি সংশোধিত বিল পাশ করান যাব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যামেন্ডমেন্ট বিল ২০২০ ” বিল নামে পরিচিত ।এই বিলের নিয়ম অনুযায়ী দেশের বেশবকিছু কো অপারেটিভ ব্যাংক গু-লি সরাসরি আরবিআই এর অধীনে চলে আসবে ।

Advertisement

ফলে সুবিধা হবে গ্রাহকের – মত অনেকের । অনেকের মতে গ্রাহকদের টাকা আরো সুরক্ষিত করতে এরম একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র । এতে উপকৃত হবে লক্ষ মানুষ । যে সব ব্যাংক দেউলিয়া হয়ে গেছে , বা যাবার সম্ভাবনা প্রবল সেই সমস্ত ব্যাংক এই নিয়মের অধীনে এলে মিলবে সুরাহা ।নতুন এই আইনে দেশের ১৪৮২টি আরবান এবং ৫৮টি মাল্টিস্টেট কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক আরবিআই-এর অধীনে চলে আসবে৷ শুধু তাই নয়,

Advertisement

যে কোনও কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কের পুনর্গঠন বা সেগুলিকে অন্য ব্যাঙ্কের সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়ারও নির্দেশ দিতে পারে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক৷ শুধু মাত্র তাই নয় । গ্ গ্রাহকদের জমা রাখা টাকা ব্যাংক থেকে কোন কারণে চু-রি বা অন্যথায় চলে গেলে মোট ১ লক্ষ টাকা ক্ষ-তি-পূরণ হিসেবে পাওয়ার কথা ছিল আগে । কিন্তু এই নিয়মের অধীনে সেই ক্ষ-তি-পূরণের টাকা বেড়ে ৫ লক্ষ টাকা হয়েছে ।

Advertisement

যা সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে নিম্ন শ্রেণীর মানুষেরা উপকৃত হবে বলে মনে করছেন কেন্দ্রীয় সরকার ।রিজার্ভ ব্যাঙ্কের অধীনস্ত ডিপোজিটার্স ইনস্যুরেন্স অ্যান্ড ক্রেডিট গ্যারান্টি কর্পোরেশন এই ক্ষ-তি-পূরণ দেওয়ার দায়িত্বে থাকে । তার সাথে এটাও জানানো হয় যে যদি কোনো গ্রাহকের কোন ব্যাংকের একসাথে অনেকগুলো শাখাতে অ্যাকাউন্ট থাকে তবে সে প্রতিটি শাখাতে সর্বাধিক পাঁচ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ক্ষ-তি-পূরণ পাওয়া যেতে পারে ।

Advertisement

Advertisement

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button